Sunday, October 15, 2017

ফাঁশ হল মাদার তেরেসার আসল রূপ | মাদার তেরেসা কি গরিবের বন্ধু ছিলেন?


মাদার তেরেসা সম্পর্কে বেশির ভাগ মানুষ যা জানেন, তা ভুল জানেন। ভেড়ার পালের মতো যেদিকে সব মানুষ যায়, সেদিকে যায় না এমন মানুষ খুব কম।  পত্র-পত্রিকা তেরেসাকে ভালো বলছে, রেডিও টেলিভিশন ভালো বলছে, প্রতিবেশীরা ভালো বলছে, বড় বড় লোক ভালো বলছে, চেনা পরিচিতরা ভালো বলছে, সুতরাং তিনি ভালো---এই যুক্তি খুব কম লোক আছে যে মানেন না। মাদার তেরেসা যাকে লোকে সন্ত বলে জানে, মহামানবী বলে জানে, তিনি এক ধর্মান্ধ কুসংস্কারাচ্ছন্ন মহিলা। মানুষের যত সেবা তিনি করেছেন, সবই করেছেন নিজের জন্য, মানুষের জন্য নয়। নিজের আখের গুছিয়েছেন, নিজের সম্বল করেছেন। নিজের পূণ্য হবে বলে করেছেন। স্বর্গে ঠাঁই পাওয়ার জন্য করেছেন। মরণাপন্ন রোগীদের রাস্তা থেকে তুলে এনে আশ্রমে বিছানা দিতেন মরার জন্য। জল চাইলে জল দিতেন। কিন্তু ওষুধ চাইলে ওষুধ দিতেন না। বাঁচতে চাইলে বাঁচতে দিতেন না। বাঁচানো তার কাজ ছিল না। তার কাজ ছিল মৃত্যর সময় রোগীদের বলা, প্রভু যীশু তোমাকে কষ্ট দিচ্ছেন, এই কষ্ট সহ্য করো, প্রভুকে খুশি করো। একবার এক প্রেস কনফারেন্সে নিজেই বলেছেন, উনত্রিশ হাজার রোগীকে জিজ্ঞেস করেছেন তারা যীশুর আশীর্বাদ চায় কী না, কেউ অস্বীকার করেনি। তিনি মুমূর্ষু রোগীদের খ্রিস্টান বানিয়েছেন। মিশনারির কাজই এই। মিশনারির এই কাজ করতেই তিনি ভারতে এসেছিলেন। হিন্দু বৌদ্ধ শিখ মুসলমান-- যাকেই অসহায়, দুর্বল, রুগ্ন পান, তাকেই সেবা করার সুযোগে ধর্মান্তরিত করবেন। তার প্রভুকে তৃপ্ত করবেন। এই কাজে তেরেসা নিঃসন্দেহে সফল।
তেরেসা গরিবের বন্ধু ছিলেন না কখনও, বরং গরিবকে তিনি ব্যবহার করেছিলেন নিজের স্বার্থে। কলকাতার দারিদ্র দূর করার কোনও উদ্দেশ্য তার কখনও ছিল না। দুর্নীতিবাজ আর পাঁড় ক্রিমিনালদের কাছ থেকে, চোর ডাকাত কাউকে বাদ দেননি, সবার কাছ থেকেই টাকা নিয়েছেন। বদমাশগুলোকে সমাজের চোখে মহৎ মানুষ বানিয়েছেন। কোটি কোটি টাকা সংগ্রহ করেছেন, ওই টাকা দিয়ে দেশে দেশে নিজের নামে মিশনারি ছাড়া আর কিছু বানাননি। কলকাতায় এমন কিছু গড়ে দেননি, যা থেকে দরিদ্রের দুর্দশা ঘুচতে পারে। ভালো একটি হাসপাতালও বানাননি, যে হাসপাতালে দরিদ্র রোগীরা আধুনিক চিকিৎসা পেতে পারে। নিজে কোনও রোগীর রোগ সারাবার ব্যবস্থা করেননি। কিন্তু তার যখন অসুখ হলো, বিদেশের বড় বড় হাসপাতালে তার চিকিৎসা হলো। এসবকে তো আমরা হিপোক্রেসিই বলি, তাই না?
কলকাতার গরিব ছেলেমেয়েদের বিদেশে দত্তক দিতেন টাকার বিনিময়ে। সনাতন পাওয়েল বেলজিয়াম থেকে কলকাতায় নিজের শেকড় খুঁজতে এসে বলেছেন, বেলজিয়ামে যে দম্পতি তাকে দত্তক নিয়েছিলেন, তাদের কাগজপত্র ঘেঁটে দেখেছেন, তাদের কাছ থেকে তেরেসার শিশু সদন লাখ টাকার ওপর নিয়েছে। কোনও শিশুকে দত্তক দেওয়ার অধিকার কোনও চ্যারিটি সংস্থার নেই। মাদার তেরেসা সেবা কেন্দ্ররও নেই। এটা স্রেফ শিশুপাচার। সনাতনের বাবা-মা বেঁচে থাকারও পরও সনাতনকে অনাথ আখ্যা দেওয়া হয়েছে, দত্তক দেওয়ার সময় সনাতনের বাবা মা’র কোনও অনুমতি নেওয়া হয়নি।
১০০ কোটিরও বেশি জনসংখ্যার দেশে থাকতেন তেরেসা, গর্ভপাত আর জন্মনিয়ন্ত্রণের বিরুদ্ধে কথা বলতেন। গণধর্ষণের কারণে মেয়েরা গর্ভবতী হলেও তিনি গর্ভ রক্ষা করার উপদেশ দিতেন। তিনি নারী স্বাধীনতার বিরুদ্ধে ছিলেন। নারীর নিজের শরীরের ওপর নিজের কোনও অধিকার আছে বলে তিনি মানতেন না। মানবাধিকারেরও বিরোধী ছিলেন।
তেরেসার কারণে দুনিয়ার মানুষ জানে কলকাতা একটি দরিদ্র শহর, যে শহরে মানুষ ক্ষিধেয়, আর দুরারোগ্য ব্যাধিতে ভোগে, খাদ্য নেই, চিকিৎসা নেই, সবাই রাস্তায় পড়ে পড়ে ধোকে। সবাইকে বাঁচিয়েছেন আলবেনিয়ার নান তেরেসা। তেরেসার কারণে মানুষ জানেনা কলকাতায় দারিদ্র আছে বটে, কলকাতায় কবি সাহিত্যিকও আছেন, কলকাতা নোবেল পুরস্কার পাওয়া রবীন্দ্রনাথের শহর। কলকাতায় উন্নত মানের নাটক সিনেমা হয়, নৃত্য সঙ্গীত  হয়। কলকাতায় বড় বড় বিজ্ঞানীদের বাস। দুহাজার পাঁচ/ছয় সালে  ইউরোপ আমেরিকায় অনেকে প্রশ্ন করে জানতো আমি কলকাতায় বাস করি, ওরা অবাক হয়ে দেখতো আমাকে, ভেবে পেতো না কী করে এক- শহর কুষ্ঠ রোগীর সঙ্গে বাস করি আমি। আমি ওদের ভুল ভাঙাতাম। কিন্তু একা আর ক’জনের ভুল ভাঙানো যায়! মাদার তেরেসা তো কলকাতা সম্পর্কে বড় এক মিথ্যে ছড়িয়ে গেছেন বিশ্বময়।
তেরেসা সম্পর্কে সত্যিটা মানুষকে জানানো বিপদ অনেক। কারণ স্রোতটাই তেরেসার পক্ষে।  স্রোতের বিপরীতে দাঁড়াতে শিরদাঁড়ায় জোর থাকতে হয়, সেটি হাতে গোনা ক’জনেরই আছে। তেরেসার আসল চেহারা ফাঁস করে দেওয়ার পর আমাকেও কম দুর্ভোগ পোহাতে হয়নি।


ট্যাগ
মাদার তেরেসা জীবনী, মাদার তেরেসার উক্তি, মাদার তেরেসার জন্মস্থান, মাদার তেরেসা অনুচ্ছেদ, মাদার তেরেসার ছবি, মাদার তেরেসার জীবন কাহিনী, মাদার তেরেসার বাণী, মাদার তেরেসা রচনা

Friday, October 13, 2017

1

ফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফফ

Saturday, September 2, 2017

অস্র হাতে যুদ্ধ করার প্রস্তুতি নিয়েছে রোহিঙ্গা মুজাহিদিনরা | অস্র হাতে নিয়েছে রোহিঙ্গা মুসলিমরা


ইনশাআল্লাহ্‌ আবার দেখা হবে স্বাধীন আরাকানের মাটিতে বছরের পর বছর লক্ষ্য লক্ষ্য মুসলমান হত্যা করেছে মায়ানমার পিঠ দেয়ালে ঠেকেছে উপায় নেই নিজেদের বাঁচাতে অস্ত্র হাতে তুলে নিয়েছি !!!
- রোহিঙ্গা মুজাহিদ




ট্যাগ
বাংলা ফানি জোন,বাংলা ফানি টক শো,বাংলা মুভি,ফানি নাটক,ফানি ওয়াজ,রোহিঙ্গা,রোহিঙ্গা নারী ধর্ষণ,রোহিঙ্গা নির্যাতন,রোহিঙ্গা নারীদের ধর্ষণ করা হচ্ছে,রোহিঙ্গা খবর,রোহিঙ্গা সেক্স,রোহিঙ্গা নির্যাতন ভিডিও,রোহিঙ্গা মুসলিমদের উপর গণহত্যা,রোহিঙ্গা মুসলমানদের উপর চলছে সীমাহীন নির্যাতন,রোহিঙ্গা জাতির ইতিহাস,রোহিঙ্গা কারা,রোহিঙ্গা সমস্যা কি,রোহিঙ্গা সমস্যা ও সমাধান,রোহিঙ্গা সমস্যা ২০১৬,রোহিঙ্গা ইতিহাস সমস্যা ও সমাধান,রোহিঙ্গা মুসলিম,রোহিঙ্গা সমস্যা সমাধান

Wednesday, January 18, 2017

রাঁধুনি সরিষার তেলের নামে কি খাচ্ছেন - দেখুন আর শেয়ার করুন

সম্মানিত বন্ধুরা আপনাদের জন্য সু-খবর। এখন থেকে সকল এক্সক্লুসিভ ভিডিও, কোরআন তেলোয়াত, বাংলা ওয়াজ, মিউজিক ভিডিও, সকল প্রকার সংবাদ, অডিও সহ ইউটিউব এ প্রতিদিনের তাজা ও গরম খবর দেখতে আমাদের সাথেই থাকুন; সবাইকে আন্তরিকভাবে অনুরোধ করছি আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করার জন্য। আপনাদের সহযোগিতা আমরা এগিয়ে চলার প্রেরণা।

Monday, October 31, 2016

দুধ আর কোকা কোলা একত্রে মেশালে কি হয় দেখুন - ভিডিও সহ

দুধ আর কোকা কোলা একত্রে মেশালে কি হয় দেখুন - ভিডিও সহ
যারা ইফতারের তালিকায় কোক রেখেছেন তাদের জন্য।
দুধ আর কোকাকোলা একেবারে ভিন্ন রকমের দুইটি পানীয়। দুধ পান করতে অনেকেরই অনীহা। বিশেষ করে বাচ্চাদের। প্রাপ্তবয়স্করাও অনেকেই দুধ পান করতে চান না। কোকা কোলা পান করতে আবার কারোই তেমন আপত্তি দেখা যায় না। একদিকে স্বাস্থ্যকর পানীয় দুধ, আরেকদিকে অস্বাস্থ্যকর অথচ সুস্বাদু কোকা কোলা- এদের একসাথে মেশালে কী হবে? কোকা কোলার সাথে মেন্টস মেশালে যেমন বিস্ফোরণ শুরু হয়ে যায় তেমন কিছু হবে? না, তেমন চোখ ধাঁধানো কিছু হবে না। আসল ঘটনাটা দেখতে ঘন্টাখানেক পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে আপনাকে। ভিডিওতে দেখুন কী হয়। এক বোতল কোকের মাঝে দুধ মেশালে ঘন্টাখানেক পর স্বচ্ছ হয়ে আসবে মিশ্রণটি আর কিছু বাদামি তলানি পড়ে থাকবে বোতলের তলায়। বোতলের মাঝে আসলে কী ধরণের বিক্রিয়া ঘটে? স্টিভ স্প্যাংলার সায়েন্স, একটি বিজ্ঞানধর্মী ব্লগের ব্যাখ্যা অনুযায়ী, তরল এবং তলানি আলাদা হয়ে যায় কারণ কোকের ফসফরিক অ্যাসিড এবং দুধের মাঝে বিক্রিয়া। ফসফরিক অ্যাসিডের অণুগুলো দুধের অণুর সাথে আটকে যায়, যাতে এর ওজন যায় বেড়ে এবং তরল থেকে আলাদা হয়ে তলানি হিসেবে পড়ে। বাকি হালকা তরল ওপরে থেকে যায় স্বচ্ছ হয়ে।

Wednesday, October 5, 2016

ইন্ডিয়ার সেনা ঘাঁটি উড়িয়ে দেওয়ার ভিডিও প্রকাশ করল পাকিস্তান - ভিডিও সহ


সম্মানিত বন্ধুরা আপনাদের জন্য সু-খবর। এখন থেকে সকল এক্সক্লুসিভ ভিডিও, কোরআন তেলোয়াত, বাংলা ওয়াজ, মিউজিক ভিডিও, সকল প্রকার সংবাদ, অডিও সহ ইউটিউব এ প্রতিদিনের তাজা ও গরম খবর দেখতে আমাদের সাথেই থাকুন; সবাইকে আন্তরিকভাবে অনুরোধ করছি আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করার জন্য। আপনাদের সহযোগিতা আমরা এগিয়ে চলার প্রেরণা।
#ট্যাগ
ভারত চীন যুদ্ধ, কার্গিল যুদ্ধ, কারগিল যুদ্ধের ফলাফল, ভারত ও পাকিস্তানের সামরিক শক্তি, ভারত চিন যুদ্ধ, ভারত পাকিস্তান যুদ্ধ ১৯৭১, ভারত পাকিস্তান সামরিক শক্তি, পাক ভারত যুদ্ধ ১৯৭১, ভারত পাকিস্তান যুদ্ধ ১৯৬৫, পাকিস্তান সেনাবাহিনী, পাক ভারত যুদ্ধ ১৯৬৫, পাকিস্তানের পারমানবিক বোমা, চীন ভারত যুদ্ধ, পাকিস্তান বিমান বাহিনী, ইরানের সামরিক শক্তি, ভারতের সামরিক বাহিনী, ভারতের অর্থনীতি, পাক-ভারত উত্তেজনা

Sunday, October 2, 2016

ভারতীয় সৈন্যরা বিদ্রোহ ঘোষণা করল মোদীর বিরুদ্ধে ভিডিও সহ


সম্মানিত বন্ধুরা আপনাদের জন্য সু-খবর। এখন থেকে সকল এক্সক্লুসিভ ভিডিও, কোরআন তেলোয়াত, বাংলা ওয়াজ, মিউজিক ভিডিও, সকল প্রকার সংবাদ, অডিও সহ ইউটিউব এ প্রতিদিনের তাজা ও গরম খবর দেখতে আমাদের সাথেই থাকুন; সবাইকে আন্তরিকভাবে অনুরোধ করছি আমাদের চ্যানেলটি সাবস্ক্রাইব করার জন্য। আপনাদের সহযোগিতা আমরা এগিয়ে চলার প্রেরণা।
#ট্যাগ
ভারত চীন যুদ্ধ, কার্গিল যুদ্ধ, কারগিল যুদ্ধের ফলাফল, ভারত ও পাকিস্তানের সামরিক শক্তি, ভারত চিন যুদ্ধ, ভারত পাকিস্তান যুদ্ধ ১৯৭১, ভারত পাকিস্তান সামরিক শক্তি, পাক ভারত যুদ্ধ ১৯৭১, ভারত পাকিস্তান যুদ্ধ ১৯৬৫, পাকিস্তান সেনাবাহিনী, পাক ভারত যুদ্ধ ১৯৬৫, পাকিস্তানের পারমানবিক বোমা, চীন ভারত যুদ্ধ, পাকিস্তান বিমান বাহিনী, ইরানের সামরিক শক্তি, ভারতের সামরিক বাহিনী, ভারতের অর্থনীতি, পাক-ভারত উত্তেজনা

Popular Posts

Recent Posts

ads

Unordered List

Sponsor

AD BANNER

About me

Extra Ads

AD BANNER

Contact Form

Name

Email *

Message *

Post Top Ad

LightBlog

Post Top Ad

Your Ad Spot

Post Top Ad

Your Ad Spot

Hot

Sponsor

test

Photography

About Us

authorHello, my name is Jack Sparrow. I'm a 50 year old self-employed Pirate from the Caribbean.
Learn More →

Comments